হ, আমি মোডা! তোমার কোন সমস্যা?

হ, আমি মোডা! তোমার কোন সমস্যা? এমন একটা টাইটেলে এবং টপিক নিয়ে আজকে ঈদের দিনই লিখতে হবে ভাবি নি। কিন্তু যারা আমাকে আজকে হুদা কামে বার বার মনে করায় দেবার চেষ্টা করেছেন যে আমি মোডা, তাদের জন্য আজকের এই লেখা উৎসর্গ করলাম। দোয়া করি, আপনারা চিরদিন বেচেঁ থাকেন।

প্রতিবার যখন খুলনায় আসি, বা ঢাকাতেই কোন আত্মীয় স্বজনের সাথে দেখা হয়, তখন অবাক হয়ে একটা জিনিষ লক্ষ্য করি, সেটা হলো সবাই আমি মোটা হইছি কি চিকন হইছি সেইটা নিয়া ব্যস্ত! কিন্তু এই মানুষগুলি সারা বছরে কখনই একটাবার খোঁজ নেয় না যে আমি কেমন আছি।

আমার পরিবারের লোকজন (বাবা-মা-ভাই-ভাবী-বোন) আমার খবর রেগুলার রাখে, তারা যদি আমাকে বলে যে আমি আগের থেকে মোটা হয়েছি কি হই নি, আমার কোন আপত্তি নাই। কিন্তু যাদের এটা জানার সময় নেই যে আমি কেমন আছি। কিন্তু আমি মোটা হয়েছি কি হই নি, সেটা খবর রাখার সময় আছে, তাদের বলি, এটা হিসাবের আপনি কেউ না, এবং আপনি যখন বলেন, তখন সেটা আমি মোটেও ভালো ভাবে নেই না। সে আপনি আদর করে বলেন, আর আমার প্রতি কেয়ারিং হয়েই বলেন।

এটা যে শুধু আমার কথা তা নয়, এটা প্রতিটা মানুষেরই কথা। ধরেন আপনি আজকে দেখতে খুব ভালো। কিন্তু একটা বিয়েতে যেভাবে সেজেছেন, তাতে আপনাকে বাজে লাগছে, এবং বিয়ে বাড়ির সবাই আপনাকে এটা মনে করিয়ে দিচ্ছে, আপনার কেমন লাগবে? আমারও ঠিক সেই রকম লাগে।

এবার আর একটা কথা বলি। আমাকে রেগুলার বেসিসে যারা মনে করায় দেন যে আমি আগের থেকে মোটা হয়ে গেছি (কথাটা আসলে মিথ্যা…. কারণ আমি খুবই লম্বা সময় ধরে মাত্র ২/৩ কেজি ওজনের হেরফেরে আছি) তারা কেউই রোগ মুক্ত না। হয় গ্যাস্ট্রিক, জন্ডিস, না হয় ডায়বেটিকস, না হয় ব্লাডে প্রবলেম, না হয় পেটে প্রবলেম, মানে একটা কিছু না একটা কিছু আছে। কিন্তু আমি আল্লাহর রহমতে অনেক ভালো আছি। আমার না হাই প্রেসার, না লো প্রেসার না কোন সমস্যা। তাই আপনি যদি আসলেই আমার বিষয়ে কেয়ার করেন, তাহলে আপনাকে অত্যন্ত ভদ্র ভাবে জানাচ্ছি, “you can keep you mouth shut”!

আমি জানি আপনারা আমার বিষয়ে কেয়ার করেন না। কখনও প্রশ্ন করেছেন যে আমার ফিউচার প্লান কি? আমার ব্যবসা কেমন চলছে? আমার কি করতে ইচ্ছা করে, আমি কেন একলা ঢাকায় পড়ে আছি? আমার কোন কাজে আপনাদের আগ্রহ আছে? আমার একটা ক্রিয়েটিভ কাজ কি কখনও লক্ষ করে দেখেছেন? আমার কোন সেমিনারে কতজন লোক হয়েছে কখনও কি প্রশ্ন করেছেন? আমার প্রচার করা পন্য ঠিক ভাবে বিক্রি হচ্ছে কিনা সেটা জিজ্ঞাসা করেছেন? আমার পরিবার এইগুলাও জানতে চায়, সাথে আমি কেন চিকন হই না সেটাও জানতে চায়। তাদের উত্তর করেতে ভালো লাগে, আপনাদের সাথে কথা বলতেই খারাপ লাগে। কারণ এই খুজতে চাইলে এই প্রশ্নের উত্তর গুলি খুজে বের করুন।

আরও কয়েকজন আছেন রসে দুই কাঠি আগায়! তারা টিপস দিতে শুরু করেন যে এইটা করলে এই হবে, এইটা করবা, ঐটা করবা। এমন কয়েক জনের সাথে আজকে বেশ লাগাইলাম! সোজা বলে দিলাম, টিভিতে জব করবে কি না! আমি ব্যবস্থা করে দিবো, প্রোফেশনাল ইন্সট্রাক্টর 😉 । আপনারা কি এতটুকু বুঝেন না যে আমি জানি আমার কি দরকার কি দরকার না? এখন চাইলেই আমি ইন্টারনেটে ইচ্ছামত দেখে নিতে পারি যে কি খাইলে আমি চিকন থাকতে পারবো। মূল বিষয় হলো আমার ইচ্ছা। আমি ইচ্ছা করলে সেটা এমনেই জানতে পারি, আপনার বলা লাগবে না।

হয়ত কেউ মনে করবেন যে এটা ভদ্র কোন তরিকা না, তবে তাদের বলি, আমি লম্বা একটা সময় ধরে অন্য অনেক কথা বলে থামাবার চেষ্টা করেছি, কিন্তু তারা থামবে না। তাই এই পন্থা বের করছি। ওহ, তারা সবাই জানতে পারবে তো? আমার জানা মতে তাদের প্রায় প্রত্যেকের ছেলে-মেয়ে কেউ না কেউ আমার ফ্রেন্ড লিষ্টে আছে, এবং আমি আশা করি তারা আমার এই কথা গুলি তাদের বড়দের কাছে পৌছে দিবে।

এত কিছুর পরেও যারা মনে করছেন যে আমি এভাবে না বললেও পারতাম, তাদের কিছু কথা বলি। আপনি জানেন যে একটা মানুষ যখন মোটা হয়,তখন সবার আগে কে টের পায়? সবার আগে কে সেটা নিয়ে চিন্তিত হয়? দুইটারই উত্তর হচ্ছে যে মোটা হচ্ছে সেই টের পায়, কারণ সমস্যাটা তারই বেশী। আমি যখন মোটা হই, আমার বেল্টের ঘাট টাইট হয়, আমার প্যান্ট টাইট হয়, আমার টি-শার্ট টাইট হয়, আমার শার্ট টাই হয়। আমার নিজের হাসফাস বেশী লাগে। আমিতো বুঝতেছিই আমি মোটা হয়ে গেছি, এর পর আপনি বললে আমার ফায়দা কি? আপনি বললে কি আমার গায়ের থেকে দুই ছটাক চর্বি খসে পড়বে? আপনি বললে কি আমার দুই গ্রাম ওজন কমবে? আপনি বললে কি আমি আপনার মত রোগা পটকা হয়ে যাবো? আপনিও জানেন আমিও জানি যে এর কিছুই হবে না। তাই আপনি আপনার চরকায় তেল দেন, আমি আমার চরকায় তেল দেই।

আমি মানুষকে মাঝে মধ্যে বিরক্ত হয়ে খুব বাজে ভাবে এটাক করি, তার একটা ছোট ঘটনা দিয়ে শেষ করি। বহু বছর আগে কোন একটা কারণে আমার আব্বা আমাকে এবং আমার ছোট বোন কে একটা ঝাড়ি দিছে। পাশের বাসার এক খালাম্মা আমাকে বিকালে জিজ্ঞাসা করে, “ও শফূল, তোর আব্বা তোরে আর তোর বোনরে দুপুরে এমনে ঝাড়ি দিলো ক্যা?”

তাকে উত্তর করলাম, “ও খালাম্মা, আপনারে যে সেইদিন খালু পিডায় শুয়ায় দিলো, আমি কি জিগাইছি যে ক্যা পিডাইছে, আপনে ক্যান আমারে জিগান?”

এই ঘটনা প্রায় ১০-১২ বছর আগের, এখন পর্যন্ত খালাম্মা আমাকে বাড়তি কোন ফালতু প্রশ্ন করে না, আমার ধৈর্য্যের বাধঁ ভাঙ্গছে, আত্মীয় স্বজন, বড় ছোট দেখবো না, এমন প্রশ্ন করে বসবো যে আমারে বেয়াদপ কইতে হবে, কিন্তু আর আমার সামনে খাড়াইতে পারবেন না।

4 thoughts on “হ, আমি মোডা! তোমার কোন সমস্যা?

  1. মোটা মোটা। সারা দুনিয়া মোটা-ময় !

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *